January 22, 2018 11:52 pm

আপনি কি প্রচণ্ড শুকনা? – কীভাবে ওজন বাড়ে?

আপনি কি প্রচণ্ড শুকনা? মন ভাল রাখার অন্যতম উপায় দেহ ফিট রাখা। তার আগে যারা শুকনা আমার মত, তাদের জন্য দরকার একটা নির্দিষ্ট পরিমাণ ওজন। কীভাবে ওজন বাড়ে?

আমরা সাধারণত ৩ ধরণের খাবার খাই। শর্করা, আমিষ আর স্নেহ জাতীয়। আজ শুধু শর্করা নিয়ে কথা হবে। ভাত, আটা, আলু বিভিন্ন শাকসবজি মোট কথা উদ্ভিদ থেকে প্রাপ্ত বেশিরভাগ খাবারই যা আমরা খাই সব শর্করা। আপনি এসব যাই খান না কেন, হজম হয়ে সব গ্লুকোজে রুপান্তর হয়(এজন্যই দুর্বল বা রোগীদের গ্লুকোজ খাওয়ানো হয়। খেলোয়াররা খেলার সময় গ্লুকোজ পান করে যেটাকে আপনি পানি মনে করেন :p। কারণ এটা হজম করার কিছু নেই, খাওয়া মাত্রই শরীরে শোষিত হয়ে আপনাকে শক্তি দিবে)। এরপর রক্তের মাধ্যমে দেহে শোষিত হয়। সেখান থেকে কোষে প্রবেশ করে, এরপর মাইটোকন্ড্রিয়ার গ্লুকোজ ভেংগে শক্তি উৎপন্ন হয় যা আমরা বিভিন্ন কাজের মাধ্যমে ব্যবহার করি।

একজন মানুষ গড়ে ১৫০০-২০০০ ক্যালোরি শক্তি খরচ করে। বয়স, ওজন, উচ্চতা এবং কাজের ধরণ অনুযায়ী এটা কম বেশি হতে পারে। এখন আপনি যে পরিমাণ ক্যালোরি খরচ করেন প্রতিদিন তার থেকে বেশি পরিমাণ ক্যালোরি যদি গ্রহণ করেন, তাহলে বাকিটা আপনার দেহে ফ্যাট হিসেবে সঞ্চিত থাকবে ত্বকের নিচে। এজন্য দেখবেন কারো কারো ত্বক চক চক করে। আপনি প্রতিদিন যা খরচ করেন তার থেকে যদি ১১০০ ক্যালোরি বাড়তি খান তাহলে সপ্তাহ শেষে আপনার ওজন বাড়বে ১ কেজি। অর্থাৎ এক কেজি ওজন= ৭৭০০ ক্যালোরি। এভাবেই আপনার ওজন বাড়ে

  • ১০০ গ্রাম রান্না করা ভাত= ১৩০ ক্যালোরি।
  • ১০০ গ্রাম আটা= ৩৩৯ ক্যালোরি।
  • ১০০ গ্রাম গ্লুকোজ= ৩৩৫ ক্যালোরি।
  • ১০০ গ্রাম চিনি = ৩৮৭ ক্যালোরি 😎 এজন্য মোটা হতে চাইলে মিষ্টি খান নিয়মিত।

এবার হিসেব করে খাওয়া শুরু করুন আর সপ্তাহে এক কেজি ওজন বাড়ান।

বিদ্রঃ এটা ভাল ফ্যাট। কারণ আপনার শক্তির অভাব হলে বা ওজন কমাতে চাইলে তখন এই ফ্যাট সহজেই গ্লুকোজে রুপান্তর হয়ে ব্যাক করবে।
পোস্টটি আপনার পাটকাঠি ভাই-বোন, প্রেমিক-প্রেমিকার সাথে শেয়ার করুন, তাদেরকে মোটা হওয়ার সুযোগ করে দিন।

Comments