January 22, 2018 12:25 pm

কাঁচা হলুদের গুনাগুণ

কাঁচা হলুদের গুনাগুণ !
মুখে জ্বালা-পোড়া করলে গরম পানির
মধ্যে হলুদের পাউডার
মিশিয়ে কুলকুচি করুন।
শরীরের কোনো অংশ
পুড়ে গেলে পানির মধ্যে হলুদের
পাউডার
মিশিয়ে লাগাতে পারেন।
সূর্যের তাপে গা জ্বলে গেলে হলুদের
পাউডারের মধ্যে বাদামের চূর্ণ এবং দই
মিশিয়ে লাগান।
সর্দি-কাশি হলে হলুদ খেতে পারেন।
কাশি কমাতে হলে হলুদের
টুকরা মুখে রেখে চুষুন। এছাড়া এক
গ্লাস গরম দুধের মধ্যে হলুদের
গুঁড়ো এবং গোল মরিচ
গুঁড়ো মিশিয়ে পান করুন।
আয়ুর্বেদিক মতে, হলুদ নাকি রক্ত শুদ্ধ
করে। তাই হলুদের ফুলের পেস্ট
লাগালে চর্ম রোগ দূর হয়।
এটি চেহারার সৌন্দর্য বাড়াতেও
সাহায্য করে। হলুদের সঙ্গে চন্দন
মিশিয়ে মুখে লাগালে ত্বক উজ্জ্বল
হয়।
এর মধ্যে প্রোটিন, ভিটামিন, খনিজ
লবণ, ফসফরাস, ক্যালসিয়াম,
লোহা প্রভৃতি নানা পদার্থ রয়েছে।
তাই হলুদ খেলে শরীরে রোগ
প্রতিরোধের ক্ষমতা জন্মায়।
লিভারের ক্ষেত্রে হলুদ খাওয়া খুবই
ভালো।
হলুদের মধ্যে ফিনোলিক যৌগিক
কারকিউমিন রয়েছে যা ক্যান্সার
প্রতিরোধ করে।
হলুদ মোটা হওয়া থেকে বাঁচায়।
হলুদে কারকিউমিন নামে এক ধরনের
রাসায়নিক পদার্থ রয়েছে যা শরীরে খুব
তাড়াতাড়ি মিশে যায়। শরীরের
কলাগুলোকে বাড়তে দেয় না।
গা ব্যথা হলে দুধের মধ্যে হলুদ
মিশিয়ে খেতে পারেন। জয়েন্টের
ব্যথা হলে হলুদের পেস্ট
তৈরি করে প্রলেপ দিতে পারেন।

Comments

Leave a Reply