January 23, 2018 8:10 pm

ভালো বাসার বড় রেকট : ১২ কোটি টাকার ফুল বিক্রি

তোমারেই যেন ভালোবাসিয়াছি শত রুপে শতবার/ জনমে জনমে যুগে যুগে অনিবার। অনেক ছিল বলার, যদি সেদিন ভালোবাসতে/পথ ছিল গো চলার, যদি দুদিন আগে আসতে। বিশ্ব কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ও বিদ্রোহী কবি কাজি নজরুল ইসলামের কবিতায় প্রেম ভালবাসা বর্হিপ্রকাশ ঘটেছে। ভালবাসা দিবসের নানা কাল্পনিকতা থাকলেও সেই ভালাবাসার দিনটি স্মরণ করেতেই তৈরি হয়েছে বিশ্বভালোবাসা দিবস। আর সম্রাট শাহাজান তার স্ত্রী মোমতাজকে ভালবেসে তৈরি করেছিল তাজ মহল। যুগে যুগে ভালবাসার জন্য মানুষ কত কিছুই না করেছে। সেই ভালবাসা দিবস ও বসন্তবরণ দিনগুলো আড়াম্বরভাবে পালান করার জন্য যশোরের ঝিকরগাছায় এবার ১২ কোটি টাকার রেকর্ড পরিমানের ফুল বিক্রি হয়েছে।

১৪ ফেব্রুয়ারী বিশ্ব ভালোবাসা দিবস

১৪ ফেব্রুয়ারী বিশ্ব ভালোবাসা দিবস

পহেলা ফালগুনে বসন্তবরণ ও ১৪ ফেব্রুয়ারী বিশ্ব ভালোবাসা দিবস এলক্ষ্যে ঝিকরগাছা গদখালী ফুল হাটে দুদিনে ১২ কোটি টাকার ফুল বিক্রি হয়েছে। এখনো চাষীরা ফুল বিক্রিতে মহা ব্যস্ত সময় পার করছে। তাদের উৎপাদিত ফুল গদখালী ফুল হাটে নিয়ে আসলে এক ফুলের সমাজ্রে পরিণত হয়।
এবার বসন্তবরণ,ভালোবাসা দিবস, আন্তাজর্তিক মাতৃভাষা দিবস ও পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে যশোর গদখালীর ফুল ব্যবসায়ীরা ২৫/৩০ কোটি টাকার ফুল বিক্রির প্রত্যাশা করছেন। যশোর শহর থেকে ২০ কিলোমিটার পশ্চিমে যশোর-বেনাপোল মহাসড়ক ধরে গেলে ঝিকরগাছার গদখালী বাজার। ফুলের সামরাজ্য হিসেবেই সারাদেশে এলাকাটির রয়েছে বেশ পরিচিতি।

১৪ ফেব্রুয়ারী বিশ্ব ভালোবাসা দিবস

১৪ ফেব্রুয়ারী বিশ্ব ভালোবাসা দিবস

এখানকার ফুলচাষীরা দেশের মোট ফুলের চাহিদার ৭০ ভাগ জোগান দিয়ে থাকে। এ উপজেলার গদখালী, পানিসারা, নির্বাসখোলা, শিমুলিয়া ইউনিয়নের প্রধান অর্থকারী ফসল এ ফুল। ধান চাষ বলতে গেলে কৃষকরা করেই না। এঅঞ্চলের উৎপাদিত ফুল কৃষকরা প্রতিদিন সকালে তুলে স্থানীয় গদখালী বাজারে বিক্রি করেন। এসব ফুলের মধ্য রয়েছে ইরানী গোলাপ,সাদা গোলাপ, সাদা গ্লেডিয়াস, রঙ্গিন গ্লেডিয়াস, সাদা রজনীগন্ধ,লাল রজনীগন্ধা,জবা ফুলসহ হরেক রকমের ফুল।
ফুল ব্যবসায়ী মোহাম্মাদ আব্দুস সালাম জানান, ফুল ব্যবসায়ীরা সারা বছর ধরে বছরের বিশেষ কিছু দিনের দিকে তাকিয়ে থাকে অধিক পরিমানে ফুল বিক্রির জন্য। এ দিন গুলোর মধ্যে ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবস,পহেলা ফালগুনে বর্ষ বারণ,১৪ ফেব্রুয়ার বিশ্ব ভালবাসা দিবস, ২১শে ফেব্রুয়ার আন্তজার্তিক মার্তভাষা দিবস উল্লেখ্য যোগ্য। এ দিন গুলোর উপলক্ষে সারা বাংলাদেশ থেকে ব্যবসায়ীরা এখানে আসে ফুল ক্রয়ের জন্য। এ দিনগুলোতে এলাকার স্কুল কলেজের ছাত্র-ছাত্রীসহ বিভিন্ন পেশা ও বয়সের লোক এখানে ফুল কিনতে আসেন। তাছাড়া সারা বছর ধরেই এখানে ফুল ক্রয়-বিক্রয় হয়ে থাকে। তবে তা আশানুরুপ নয় বলেও তিনি জানান।
NRF-Rose-Jessor-1-300x180[1]
এবছর এখানকার বাজারে পাইকারী গোলাপ প্রতি ৫/৬ টাকা,গ্ল্যাডিয়াস সাদা ৫/৬ টাকা, গ্ল্যাডিয়াস লিপিস্টিক ৮/১০ টাকা, গ্ল্যাডিয়াস হলুদ ৮/৯ টাকা, গ্ল্যাডিয়াস সিঁদুর ৭/৮ টাকা, গ্ল্যাডিয়াস মকমল লাল ৭/৮ টাকা,রজনীগন্ধা ২/৩ টাকা, জারবেরা ১০/১২ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।
গদখালী বাজারে ফুল বিক্রি করতে আসা করিমগাজী জানান, তিনি এবছর ৪ বিঘা জমিতে ফুলের চাষ করেছেন। এর মধ্যে এক বিঘা জমিতে গ্লেডিয়াস ফুল লাগিয়েছেন। বাকি চার বিঘার মধ্যে এক বিঘায় গোলাপ,এক বিঘা জবা ও দুই বিঘা জমিতে রজনীগন্ধার চাষ করেছেন। সব মিলিয়ে তিনি এবছর ফুল চাষের জন্য ১৬/১৭ লাখ টাকা খরচ করেছেন। তিনি আশা প্রকাশ করছেন এ বছরে প্রকৃতি সহায় হলে ২৫/২৬ লাখ টাকার ফুল বিক্রয় হবে।

তিনি আরো জানান, এক বিঘা গ্লেডিয়াস ফুল চাষ করতে খরচ হয় ১৫ লাখ টাকা, এক বিঘা গোলাপ চাষ করতে লাগে ৭০/৮০ হাজার টাকা, দু’বিঘা রজনীগন্ধার চাষ করতে প্রয়োজন হয় ১ লাখ টাকা আর এক বিঘা জবা ফুলের চাষ করতে লাগে ২৫/৩০ হাজার টাকা।
গদখালীর ফুল ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আব্দুর রহিম জানান, বিশ্বভালবাসা দিবস উপলক্ষে শনি ও রবি বার ভোর ৫টা থেকে সকাল ৯টা পর্যন্ত গদখালী ফুলের বাজারে প্রায় ১২ কোটি টাকার ফুল বিক্রি হয়েছে। তবে আমরা আশা করেছিলাম দেশের বিশেষ তিন দিনে প্রায় ২৫/৩০ কোটি টাকার ফুল বিক্রি হবে। ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবস, পহেলা ফালগুনে বর্ষ বরণ,১৪ ফেব্রুয়ার বিশ্ব ভালবাসা দিবস, ২১শে ফেব্রুয়ার আন্তজার্তিক মার্তভাষা দিবসকে কেন্দ্র করে চাষীরা ফুল উৎপাদন করে থাকে। এ দিনগুলো ছাড়াও গদখালী বাজারে প্রতিদিন ফুলের হাট বসে। তবে প্রত্যশা করা হয়েছিল এবারের ১৫ কোটি টাকার ফুল বিক্রি হবে। কিন্তু তা থেকে কিছুটা কম হয়েছে।

Comments