January 23, 2018 12:02 am

Ghush(ঘুষ) – কালের আর্বতে একসময় তা টাকায় পরিণত হয়

ব্রিটিশরা ঘুষ বুঝতোনা।ঘুষ কেন নিবে সেটাও জানতোনা। ঘুষ কি ? তা ব্রিটিশদের বুঝিয়েছে বাঙালিরা। ব্রিটিশদের শাসন কালে ঘুষ ছিল কলার কাঁদি।কিন্তু বর্তমানে তা টাকায় পরিণত হয়েছে। বিস্তারিত নিচে দেখি।

যখন ব্রিটিশরা বাংলা শাসন করতো সেই সময়ের কথা—
তখন অফিসের বড় কর্তারা সবাই ছিল ব্রিটিশ,
অন্যরা ছিল বাঙালী।

এক সরকারী অফিসে একদিন সকালবেলা হাসমত নামে ঐ অফিসে পিয়ন পদে কর্মরত এক বাঙ্গালী, অফিস চলাকালীন সময় ঐ অফিসে কর্মরত ব্রিটিশ বড়কর্তার কাছে দৌড়ে এসে বললেন-
-Sir sir, Rohim boss eating Ghush.
ব্রিটিশ বড়কর্তাতো অবাক হয়ে জানতে চাইলেন-
-Ghush! What is Ghush?
Why is he eating Ghush?

ব্রিটিশ বড় কর্তা ঘুষ বিষয়টি বুঝতে পারলেন না। তার ধারনা বাঙালীদের ভাত থাকতে তারা কেন ঘুষ খাবে! এটা তার মাথায় আসছে না।
ঘুষ খাবারটাই বা কেমন এটাও তার অজানা।
তাই তিনি পিয়নকে নিয়ে ঘুষ দেখতে রহিম সাহেবের রুমে গেলেন। গিয়ে দেখেন একজন লোক রহিম সাহেবের সামনে এক কাদি কলা নিয়ে বসে আছে আর রহিম সাহেব তার ফাইলে সাইন করছেন। সাইন শেষে তাকে কলার কাদি দিয়ে লোকটি চলে গেলেন।
পিয়ন তখন বলল-
– এই যে Sir this is Ghush.
Rohim sir eating Ghush!

ব্রিটিশ বড় কর্তা তখন রহিম সাহেবের রুমে এসে
-Wow! this is called GHUSH?

This Banana! Good, Good বলে তিনি কাদি থেকে একটা কলা ছিঁড়ে খেতে খেতে বলতে লাগলেন-
-Ghush is good for health. Every body must eat GhUsh!

এই বলে ব্রিটিশ বড় কর্তা চলে গেলেন।
মনে হয় ব্রিটিশদের এই সামান্য ভুলেই সে থেকেই সারাদেশে ছড়িয়ে পড়ে ঘুষ নেয়া।
অবশ্য, কালের আর্বতে সেই কলার কাঁদি একসময় টাকায় পরিণত হয়।

পোস্টি ভালো লাগলে শেয়ার করে অন্যকে দেখার সুযোগ করে দিবেন। আর পোস্ট সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্ট করে জানাবেন।

Comments